বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৫০ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণা :
ডিসেম্বর বিজয়ের-গৌরবের
সংবাদ শিরোনাম :

৫৫ হাজার মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে মোংলায় বাণিজ্যিক জাহাজ “এমভি ওশান বে”

  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২৩, ৯.৩৭ পিএম
৫৫ হাজার মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে মোংলায় বাণিজ্যিক জাহাজ "এমভি ওশান বে"

মোংলা প্রতিনিধি : রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের কয়লা নিয়ে মোংলা বন্দরে ভিড়েছে “এমভি ওশান বে” নামক একটি বড় বাণিজ্যিক জাহাজ।

আইল অফ ম্যান পতাকাবাহী ওই জাহাজটি মঙ্গলবার দুপুরে সাগর মোহনা ফেয়ারওয়ে বয়া থেকে মোংলা বন্দরের বহিঃনোঙ্গার সুন্দরী কোটায় নোঙ্গর করেছে। এবারের চালানে আনা হয়েছে ৫৫ হাজার মেট্রিক টন কয়লা, যার সম্পুর্নটাই খালাস করা হবে মোংলা সমুদ্র বন্দরে।

জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট মেসার্স টগি শিপিং কর্তৃপক্ষ জানায়, মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) ভোড়ে মোংলা বন্দরে ফেয়ারওয়ে বয়ায় এলাকায় পৌছায়।

এদিন দুপুরের পর রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের জ্বালানী কয়লা নিয়ে ইন্দোনেশিয়া থেকে সরাসরী মোংলা বন্দরের সুন্দরী কোটার ১৪ নম্বর এ্যাংকারেজ বয়ায় নঙ্গর করে “এমভি ওশান বে”। ইন্দোনেশিয়া থেকে আনা এবারের চালানে মোর্ট ৫৫ হাজার মেট্রিক টন জ্বালানী কয়লা রয়েছে।

গত ৩ ডিসেম্বর জাহাজটি ইন্দোনেশিয়ার “মোয়ারা পান্থাই” বন্দর থেকে কয়লা বোঝাই করে বাংলাদেশের মোংলা বন্দরের উদ্দোশ্যে ছেড়ে আসে। জাহাজটি ইন্দোনেশিয়া থেকে মোংলা বন্দরে পৌছাতে ১৬ দিন সময় লেগেছে।

বুধবার দুপুরে পালা থেকে কয়লা খালাস শুরু করেছে কয়লা খালাসকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স এম এ হাসেম এন্ড সন্স লি: এর প্রতিনিধিরা। মোংলা বন্দরে ৫৫ হাজার মেট্রিক টন কয়লা খালাস করতে ৮/১০ দিন সময় লাগবে বলে জানায় এ জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট ‘টগি শিপিং অ্যান্ড লজিস্টিক লিঃ কর্তৃপক্ষ।

মোংলা বন্দরের হারবাড়িয়ার সুন্দরী কোটার ১৪ নম্বর বয়া থেকে খালাস করা কয়লা কার্গো ও লাইটার জাহাজ বোঝাই করে নেয়া হবে রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জেটিতে। তবে মোংলা বন্দরের মুল চ্যানেলে চলমান ইনার বার ড্রেজিং সম্পন্ন হলে বিদেশ থেকে সরাসরী রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জেটিতে পৌছালে সময় ও অর্থ দুটোই সাশ্রয় হবে ব্যাবসায়ীদের বলেও জানায় আমদানীকারক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা।

মোংলা কাস্টমস কর্তৃপক্ষ জানায়, জাহাজটির সকল কাগজ পত্র যাচাই-বাছাই করায় কিছুটা সময় লেগেছে, তার পর কয়লা খালাস কাজ শুরু করেছে কয়লা খালাসকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স এম এ হাসেম এন্ড সন্স এর প্রতিনিধিরা। কয়লা খারাস করে তা নেয়া হবে রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে। এছাড়া মোংলা বন্দকে সর্বাধিক সহযোগীতা করছে ব্যাবসায়ী সহ এর সাথে সংশ্লিষ্ট সকলেই।

কয়লাবাহী জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট টগি শিপিং এন্ড লজিষ্টিক লিঃ এর উপব্যবস্থাপক খন্দকার রিয়াজুল হক জানান, ইন্দোনেশিয়ার মুয়ারা পান্থাই বন্দর থেকে রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য ৫৫ হাজার মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে ছেড়ে আসা জাহাজ ‘এমভি ওশান বে’ মঙ্গলবার দুপুরে মোংলা বন্দরের নোঙ্গরের পরই খালাস কাজ শুরু হয়।

কয়লাবাহী বিদেশী জাহাজটির ড্রাফট বেশি থাকার কারণে বহিঃনোঙ্গরে কিছু কয়লা খালাস করা হবে। পরে সুন্দরী কোটায় কিছু কয়লা বাণিজ্যিক জাহাজ থেকে কার্গো ও লাইটারে খালাস করে জাহাজটি নিয়ে আসা হবে বন্দরের হারবাড়িয়া এলাকায়। সেখান থেকে সব কয়লা কার্গো ও লাইটার জাহাজে যোগে খালাস করে নেয়া হবে রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের জেটিতে।

বর্তমানে রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দুইটি ইউনিট চলমান রয়েছে, এটি ২৪ ঘন্টা চালু রাখতে সাড়ে ৫ থেকে ৬ হাজার মেট্রিক টন জ্বালানী কয়লার প্রয়োজন, এতে উৎপাদন হবে ১৩২০ মেঘাওয়াট বিদ্যুৎ।

 

পুনরায় বিজয়ী হলে আমৃত্যু সেবক হয়ে থাকবো-রূপসায় আব্দুস সালাম মূর্শেদী

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

https://natunshokal.com/#
নিবন্ধনের জন্য আবেদনকৃত অনলাইন নিউজ পোর্টাল। অনুমতি ছাড়া এই পোর্টালের কোন সংবাদ কপি করে অন্য কোথাও প্রকাশ করা থেকে বিরত থাকুন।