বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন
বিশেষ ঘোষণা
# নিয়মিত আপডেট সংবাদ পড়তে ভিজিট করুন নতুন সকাল ডটকম # পড়ুন ও বিজ্ঞাপন দিন

তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে খুলনায় বিএনপির আলোচনা সভা ও দোয়া

  • আপডেট : শুক্রবার, ২০ নভেম্বর, ২০২০, ৮.২০ পিএম
তারেক রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে খুলনায় বিএনপির আলোচনা সভা ও দোয়া

বিজ্ঞপ্তি : খুলনা মহানগর ও জেলা বিএনপির উদ্যোগে বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেশনায়ক তারেক রহমানের ৫৬তম জন্মদিন উপলক্ষে তাঁর সুস্বাস্থ্য, সাফল্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার সকাল ১১টায় দলীয় কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর বিএনপি’র সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জুর সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠিতব্য আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি এ্যাডভোকেট শফিকুল আলম মনা, মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জামান মনি, অধ্যাপক ডা. গাজী আব্দুল হক, শেখ মোশাররফ হোসেন, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, আবু হোসেন বাবু। আসাদুজ্জামান মুরাদের পরিচালনায় দোয়া করেন মাওলানা আব্দুল গাফফার।

আলোচনা সভায় মঞ্জু বলেন, দেশাত্ববোধে জারিত হওয়া অপার সম্ভাবনাময় সেদিনের তারুণ্যদীপ্ত নেতার অভ্যূদয় দেশী-বিদেশী চক্রান্তকারীরা কখনোই মেনে নিতে পারেনি। তাই ১/১১-তে মঈনউদ্দিন-ফখরুদ্দিনের সরকার তারেক রহমানকে নিঃশেষ করার জন্য মামলা, শারিরীক নির্যাতন ও ক্রমাগত কুৎসা রটনার ধারা বর্ষণ চালায়। কিন্তু তারপরও তাঁকে নীরব ও বিচলিত করা যায়নি, দুর্বল করা যায়নি তাঁর অটুট মনোবলকে। যাদের আন্দোলনের ফসল ছিল ১/১১ সরকার ক্ষমতায় এসেই তারেক রহমানের বিরুদ্ধে তাদের পূর্বসূরীদের মতোই নানামূখী চক্রান্তে আরও কয়েক ধাপ এগিয়ে যায়।

তাঁর নামে অসংখ্য মামলা দায়ের করে একের পর এক সাজা দিয়ে যাচ্ছে বিচার বিভাগকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে। তবুও তারা তারেক রহমানকে দুর্বল করতে পারেনি। এখনও দু:শাসনের হুমকি প্রতিদিনই তাঁর ওপর বর্ষিত হচ্ছে, তারেক রহমানকে চক্রান্তজালে আটকাতে চলছে নিরন্তর বহুমূখী ষড়যন্ত্র।

ক্ষমতা জবরদখলকারীরা অবিরাম কটুক্তি ও কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে গেলেও তারেক রহমানকে তাঁর বিশ্বাস ও আদর্শ থেকে বিন্দুমাত্র টলাতে পারেনি। বিএনপিকে ধ্বংস ও নেতৃত্বহীন করতে চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ১/১১’র সরকারের মামলায় ফরমায়েসী রায় দিয়ে বর্তমান সরকার তাঁকে অন্যায়ভাবে আটক রেখেছে, কিন্তু ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে সরকারের সকল ষড়যন্ত্র-কুটকৌশল মোকাবেলা করে বিএনপি এক ও ঐক্যবদ্ধ আছে। তারেক রহমানের নেতৃত্বে দলের নূতন প্রাণ স ার হয়েছে।

তৃণমূল পর্যায়ে তরুন সমাজকে জাতীয়তাবাদী রাজনীতিতে উদ্বুদ্ধ করে উন্নয়ন ও উৎপাদনের মধ্যে যুক্ত করলে দেশ অগ্রগতির পথে এগিয়ে যাবে-এই চিন্তার ধারক-বাহক ব্যবহারিক প্রয়োগের মাধ্যমে তারেক রহমান সারাদেশের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে ছুটে বেড়িয়েছেন। দেশের জনগোষ্ঠীর তৃণমূলে দীর্ঘদিনের অচলায়তন কাটিয়ে প্রাণস ার করেছিলেন তারেক রহমান। তিনি দেশের উৎপাদন-উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির স্বাপ্নিক।

তৃণমূলে অনগ্রসর জনগোষ্ঠীকে স্বাবলম্বী করার জন্য তাঁর হাঁস মুরগী-ছাগল বিতরণ ও প্রতিবন্ধী মানুষদের কম্পিউটার বিতরণ, জটিল রোগে আক্রান্ত অসহায় মানুষের চিকিৎসার উদ্যোগ ছিল যুগান্তকারী-যা আজও দেশবাসী ভুলে যায়নি। সমাজে পিছিয়ে পড়া মানুষকে আর্থিকভাবে স্বচ্ছল করতে পারলে তারা শিক্ষার প্রতি আগ্রহ ও জাতীয় উন্নয়নে অংশীদার হতে পারবে-এই বিশ্বাসেই তিনি উক্ত কর্মসূচি বাস্তবায়ন করতে দেশের সকল জনপদে ঘুরে বেড়িয়েছেন। এই দু:সময়ে বহু দুর থেকে দলকে গোছানোর কাজ করছেন অত্যন্ত মনোযোগ, ধীশক্তি ও দক্ষতা সহকারে। জনমনে আস্থা অটুট আছে।

আওয়ামী লীগ সরকারের নির্যাতন, নিপীড়ন দূঃশাসনে দেশ আজ ধ্বংসের সর্বশেষ প্রান্তে উপনীত হয়েছে। দেশের সার্বভৌমত্ব ও স্বাধীনতা আজ হুমকির মূখে। বহুদলীয় গণতন্ত্রের শেষ চিহ্নটুকু মুছে ফেলে আবারও একদলীয় শাসনের নিষ্পেষণে সারাজাতিকে বন্দী করা হয়েছে। মিথ্যা মামলায় নেতাকর্মীদের গ্রেফতার-হয়রানী ও গুম করা হচ্ছে। এই দু:সময়ে তারেক রহমানের নি:শংক মনোবল ও দৃঢ় নেতৃত্ব দুঃশাসনের বিরুদ্ধে জাতীয়তাবাদী শক্তিকে উজ্জীবিত করছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন এড. ফজলে হালিম লিটন, এড. বজলুর রহমান, রেহেনা ঈশা, স ম আব্দুর রহমান, শেখ আব্দুর রশিদ, অধ্যাপক আরিফুজ্জামান অপু, মোল্যা খায়রুল ইসলাম, রকিব মল্লিক, এড. তাসলিমা খাতুন ছন্দা, সিরাজুল হক নান্নু, কামরুজ্জামান টুকু, আশরাফুল আলম নান্নু, মহিবুজ্জামান কচি, ইকবাল হোসেন খোকন, জালু মিয়া, ওহেদুজ্জামান রানা, শেখ সাদী, সাজ্জাদ আহসান পরাগ, মুর্শিদ কামাল, একরামুল কবির মিল্টন, হাসানুর রশিদ মিরাজ, মিজানুর রহমান, শামসুজ্জামান চ ল, কামরান হাসান, শরিফুল ইসলাম বাবু, আবু সাঈদ শেখ, ম শ আলম, নাজির উদ্দিন নান্নু, আবুল কালাম জিয়া, শেখ ইমাম হোসেন, শেখ জামিরুল ইসলাম, বদরুল আনাম খান, আফসার উদ্দিন মাস্টার, কাজী আব্দুল লতিফ, ইশহাক তালুকদার, শাহাবুদ্দিন মন্টু, জসিম উদ্দিন লাবু, ইমতিয়াজ আলম বাবু, মোস্তফা কামাল, বাচ্চু মীর, আসলাম হোসেন, শাহনাজ পারভীন, শামসুল বারী পান্না, কাজী মাহমুদ আলি, শফিকুল ইসলাম বাদল, মো. আলি, জিএম মঈন উদ্দিন, সিরাজুল ইসলাম লিটন, জাহাঙ্গীর হোসেন, শামীম আশরাফ, ডা. ফারুক হোসেন, হাবিবুর রহমান কাজল, আল আমিন তালুকদার প্রিন্স, রাহাত আলি লাচ্চু, জাকারিয়া লিটন, হুমায়ুন কবির, জামাল উদ্দিন মোড়ল, সাকিল আহমেদ, মাজেদা খাতুন, তানভিরুল আজম রুম্মান, আনজিরা খাতুন, রোকেয়া ফারুক, শফিকুল ইসলাম শাহিন, হেদায়েত হোসেন হেদু, মনিরুজ্জামান মনি, মনিরুল ইসলাম, ওহেদুজ্জামান, হেমায়েত হোসেন, মনিরুজ্জামান লেলিন, মিসেস মনি, কওসারী জাহান মঞ্জু, কাকলী, সাথী, মুন্নি জামান, ইসরাত আরা কাকন, শাহারুজ্জামান মুকুল, এম এ হাসান, আমিরুল ইসলাম তারেক, খালিদ প্রমুখ ।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

নিচে আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ThemesBazar-Jowfhowo
# নতুন সকাল ডটকম, রূপসা-খুলনা থেকে প্রকাশিত একটি অনলাইন পত্রিকা। # এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।