শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৫৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
কেশবপুর বুড়িহাটী জামে মসজিদে প্রথম বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত কেশবপুর জন্মনিবন্ধন বাধ্যতমূলক করতে পৌর কাউন্সিলরের ব্যাতিক্রম উদ্যোগ কেশবপুরে ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে জাপার মতবিনিময় সভা চুলকাটিতে কৃষককের গোয়াল ঘর হতে তিনটি গরু চুরি রূপসায় আর.আর.এন সেচ্ছাসেবী সংগঠনের ৫ম বার্ষিকী উদযাপন রামপালে ৫০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাড়ে ৪ হাজার শিশু সুপেয় পানি থেকে বঞ্চিত রাইজিং সান হেল্থ ক্লাবের দ্বি-বার্ষিক সাধারন সভা অনুষ্ঠিত রূপসায় স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভা অনুষ্ঠিত এককেজি গাঁজা ও ১৩০ গ্রাম ইয়াবাসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী ও গাঁজাসেবী আটক চিলমারীতে নির্বাহী অফিসারের মদদে কাজ করছে না তথ্য কর্মকর্তারা

চিলমারীতে স্বামীর বাড়িতে স্থান মিলছে না অন্তসত্বা স্ত্রী’র

  • আপডেট : শনিবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২১, ৭.০৫ পিএম
চিলমারীতে স্বামীর বাড়িতে স্থান মিলছে না অন্তসত্বা স্ত্রী'র

চিলমার ( কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি : প্রেম, নিজের হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে প্রেমিকের ইসলাম ধর্ম গ্রহন অতঃপর বিয়ে। ভাড়া বাসায় দীর্ঘদিন সংসার করেও স্বামীর পৈত্রিক বাড়িতে স্থান মিলছে না অন্তসত্বা স্ত্রী’র। জনপ্রতিনিধিদের দারস্থ হলেও ফল পাচ্ছেনা লালিতা।

জানা গেছে, কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের দাফাদার পাড়া এলাকার আমির উদ্দিনের ছেলে সাজুর সাথে ঢাকায় এক প্রতিষ্ঠানে চাকুরীর সুবাদে পরিচয় হয় সাবার এলাকার কৃষ্ণ শাহার মেয়ে ললিতা শাহার সাথে। পরিচয়ের সূত্র ধরে ইসলাম ধর্ম গ্রহনের পর ললিতা শেরপুর এলাকার আবু জাহের আলী খান এর মেয়ে হিসাবে মোছাঃ লালিতা খান পরিচয়ে সাজু মিয়ার সাথে মুসলিম বিবাহ নিবন্ধন অনুযায়ী প্রায় ৫ বছর আগে বিয়ে হয় বলে জানান লালিতা।

বিয়ের পর থেকে তারা ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় ভাড়া থাকতেন। কিন্তু হঠাৎ সাজু গাজিপুর কোনা বাড়ির একটি ভাড়া বাসায় রেখে গ্রামের বাড়ি চিলমারী চলে আসেন। এবং যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় বলে জানান লালিতা ।

অবশেষে লালিতা শুক্রবার স্বামীর বাড়িতে আসলে বাড়ির লোকজন তাকে শারীরিক নির্যাতন করে বের করে দেয় বলে জানান লালিতা খান। লালিতা বলেন, প্রায় এক দেড় বছর প্রেমের পর সাজু আমাকে বিয়ে করে ২০১৬ সালে। প্রায় ৮ মাস আগে আমার গর্ভধারন হলে কিছু না বলেন আমাকে রেখে চিলমারী চলে আসে এবং যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। তাই আমি খোঁজ নিতে এসেছি স্ত্রী ও গর্ভের সন্তানের পিতার পরিচয়ের দাবি নিয়ে। তিনি আরো বলেন, স্থানীয় চেয়ারম্যান, মেম্বারকেও জানিয়েছি কিন্তু কোন সুরাহা পাইনি। এবং বিষয়টি থানায়ও জানাইছি।

আমি সরকারসহ সবার কাছে সহযোগিতা চাই। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সাজু মিয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে তার দেখা পাওয়া যায়নি এবং তার মুঠোফোনটিও বন্ধ পাওয়া যায়।

বিষয়টি জানতে রানীগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান মনজুরুল ইসলামের সাথে মুঠোফোন যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। কথা হলে চিলমারী মডেল থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি যেহেতু পারিবারিক তাই আদালতে গেলেই ভালো হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

নিচে আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ThemesBazar-Jowfhowo
# নতুন সকাল ডটকম, রূপসা-খুলনা থেকে প্রকাশিত একটি অনলাইন পত্রিকা। # এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।