শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:০৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
কেশবপুর বুড়িহাটী জামে মসজিদে প্রথম বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত কেশবপুর জন্মনিবন্ধন বাধ্যতমূলক করতে পৌর কাউন্সিলরের ব্যাতিক্রম উদ্যোগ কেশবপুরে ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে জাপার মতবিনিময় সভা চুলকাটিতে কৃষককের গোয়াল ঘর হতে তিনটি গরু চুরি রূপসায় আর.আর.এন সেচ্ছাসেবী সংগঠনের ৫ম বার্ষিকী উদযাপন রামপালে ৫০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাড়ে ৪ হাজার শিশু সুপেয় পানি থেকে বঞ্চিত রাইজিং সান হেল্থ ক্লাবের দ্বি-বার্ষিক সাধারন সভা অনুষ্ঠিত রূপসায় স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভা অনুষ্ঠিত এককেজি গাঁজা ও ১৩০ গ্রাম ইয়াবাসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী ও গাঁজাসেবী আটক চিলমারীতে নির্বাহী অফিসারের মদদে কাজ করছে না তথ্য কর্মকর্তারা

বিদেশে পাচারের জন্যই কি চন্দ্রমহল ইকোপার্কে বন্য প্রাণীর চামড়া মজুদ রাখা হয়েছিল ? জনমনে গুঞ্জন

  • আপডেট : শনিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২১, ৮.৩৬ পিএম
বিদেশে পাচারের চন্দ্রমহল ইকোপার্কে বন্য প্রাণীর চামড়া মজুদ রাখা হয়েছিল কিনা তা নিয়ে জনমনে গুঞ্জন

সেকেন্দার মোড়ল, বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাট সদরের রনজিৎপুর গ্রামের বহুল আলোচিত ও সমোলোচিত বেসরকারী বিনোদন কেন্দ্র চন্দ্র মহল ইকোপার্কে বিপুল পরিমানে বন্যপ্রাণীর চামড়া মজুদ রাখা হলো কিসের কারণে, তা নিয়ে সচেতন মহলে নানা গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়েছে। এই চামড়া কি বিদেশে পাচারের জন্য মজুত করা হয়েছিল, আর যদি করা হয়ে থাকে তাহালে কারা কারা এই চক্রের সাথে জড়িত। তা নিয়েও জনমনে নানা প্রশ্নের জন্ম দিচ্ছে। এবিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত করে দুষি ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহনের জোর দাবী উঠেছে।

জানা গেছে, গত ১৫নভেম্বর খুলনা র‌্যাব-৬ ও বন্যপ্রাণী ব্যাবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ খুলনা এর যৌথ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় তারা গোপন সংবাদের উপর ভিত্তি করে চন্দ্র মহল ইকোপার্কে লুকিয়ে রাখা বিপুল পরিমানে বন্য প্রাণীর চামড়া জব্দ করেন আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। এ সময় তারা ০৬টি হরিণের চামড়া, ০১টি ভাল্লুকের চামড়া, ০১টি ক্যাঙ্গারুর চামড়া, ০১টি তিমির কংকাল ও ০৬টি হরিণের শিং জব্দ সহ বিপুল পরিমানে বন্যপ্রনীর শরীরের অংশ বিশেষ জব্দ করেন। এ সময় জব্দকৃত চামড়া ও শিং এর কোন বৈধ কাগজপত্র না থাকার কারণে বন্যপ্রাণী সংরক্ষন আইন ২০১২ এর ৩৭(২) ৪০. ৩৪(খ). ২৪ এর অপরাধে চন্দ্র মহল কর্তৃপক্ষকে ৫০হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ বছরের কারাদন্ড প্রদান করা হয়। কিন্তু নগত ৫০হাজার টাকা প্রদান করায় পার্কের কথিত ম্যানেজার মোঃ মহব্বত আলী চাকলাদার-কে ছেড়ে দেওয়া হয়। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন বাগেরহাট জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নুর-ই-আলম সিদ্দিকী। সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-৬ এর এসপি মোঃ মাফুজুর রহমান বলেন, পার্ক কর্তৃপক্ষ সম্পূর্ণ অবৈধ উপায়ে বন্যপ্রাণীর চামড়া মজুদ করেছেন, যার কোন বৈধ কাগজপত্র তারা দেখাতে পারেন নী।

স্থানীয় সচেতন মহল মনে করছেন, ২০০৯সালে পার্কটি প্রতিষ্টা করা হয়। কিন্তু তারা যদি দর্শনার্থীদের দর্শনের জন্য চামড়া গুলি এনে থাকেন, তাহলে এতদিন কেন কর্তৃপক্ষ তার বৈধ কাগজপত্র তৈরী করেননি। নাম প্রকাশ না করার সর্ত্তে অনেক দর্শনার্থী বলেছে,আমরা বহুবার চন্দ্র মহলে ঘুরতে গিয়েছি, কিন্তু অন্যান্য বন্যপ্রাণী দেখতে পেলেও আমরা কোন দিন বন্যপ্রাণীর চামড়া দেখতে পারিনি। তাছাড়া চামড়া গুলি কেন গোপন স্থানে রাখা হয়েছিল। এগুলি কি সত্যিই বিদেশে প্রচারের জন্য গোপনে এনে রাখা হয়েছিল। তা নিয়ে জেলার বিভিন্ন স্থানে নানা গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়টি যথাযত ভাবে উচ্চপদাস্থ কয়েকজন কর্মকর্তাকে দিয়ে সঠিক তদন্ত করলে থলের বিড়াল বেরিয়ে আসবে বলে অভিজ্ঞ মহলের ধারনা।

 

 

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন

নিচে আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ThemesBazar-Jowfhowo
# নতুন সকাল ডটকম, রূপসা-খুলনা থেকে প্রকাশিত একটি অনলাইন পত্রিকা। # এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।