রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৪৩ পূর্বাহ্ন
জরুরী ঘোষণা :

নতুন সকাল ডটকম পড়ুন ও বিজ্ঞাপন দিন। নতুন সকাল ডটকম পড়ুন ও বিজ্ঞাপন দিন। নতুন সকাল ডটকম পড়ুন ও বিজ্ঞাপন দিন নতুন সকাল ডটকম পড়ুন ও বিজ্ঞাপন দিন *

সংবাদ শিরোনাম
বিএনপি গণতান্ত্রিক পন্থা না মানলে রাজনৈতিকভাবে প্রতিহত করা হবে-নারায়ন চন্দ্র চন্দ এমপি রূপসায় আওয়ামীলীগ নেতা বাবুর চাচার জানাজা সম্পন্ন তেরখাদা সদর ইউনিয়ন যুবলীগের কর্মী সভা প্রতিবন্ধী ব্যক্তিরা সমাজের অবিচ্ছেদ্য অংশ-সিটি মেয়র ‍‍‌‌‌‌‍‌‌গঠনমূলক সাংবাদিকতা সকলক্ষেত্রে ইতিবাচক দিকনির্দেশনা দিতে পারে রূপসায় আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস পালিত সাংবাদিক নয়নের মায়ের মৃত্যুতে তেরখাদা প্রেস ক্লাবের শোক ডুমুরিয়ায় পুরাতন ট্রালার ঘাটে ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত খুলনা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পূর্ব রূপসায় দুই বীর শহীদের মাজারে পুষ্পমাল্য অর্পণ বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমীন ও বীর বিক্রম মহিবুল্লাহ’র শাহাদৎ বার্ষিকী উপলক্ষে রূপসায় নানা আয়োজন

জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৮ নং ওয়ার্ডের সদস্য পদে চার প্রার্থী চষে বেড়াচ্ছেন তেরখাদা উপজেলা

  • আপডেট : শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ১২.৪৬ এএম
  • ১১ জন পড়েছেন

রাসেল আহমেদ : খুলনা জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডের ৪জন সদস্য প্রার্থী দিন-রাত চষে বেড়াচ্ছেন তেরখাদা উপজেলা। আগামী ১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিতব্য জেলা পরিষদ নির্বাচনে তেরখাদা উপজেলার ৮নং ওয়ার্ডের ভোটার ৮১ জন জনপ্রতিনিধি। উপজেলা ও ইউপি চেয়ারম্যান এবং ইউপি সদস্যরা এ নির্বাচনের ভোটার হওয়ায় দিন-রাত তাদের দ্বারেদ্বারে যেয়ে নানান প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন প্রার্থীরা। গত ২৬ সেপ্টেম্বর রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদারের কাছ থেকে প্রতীক পেয়েই ছুটে গেছেন নিজ নিজ এলাকায়। প্রার্থীরা হলেন উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও যুবলীগের সভাপতি এফএম মফিজুর রহমান (টিউবওয়েল), বারাসাত ইউনিয়ন আ’লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক খান মোহাম্মদ নুর ইসলাম (ঘুড়ি), সাবেক ইউপি সদস্য শেখ আফজাল হোসেন (অটোরিকশা) এবং প্রথম শ্রেণীর ঠিকাদার ও সরবরাহকারী মোঃ আলমগীর ফকির (তালা)। ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, সাধারণ নির্বাচনের মতো জেলা পরিষদের ভোট নয়-এখানের ভোটাররা সকলেই জনপ্রতিনিধি। সে কারণে গতানুগাতিক ভোটের ভিন্ন চিত্র এ নির্বাচনে। ফলে প্রার্থীদের সম্পর্কে চুলচেরা বিশ্লেষন করেন ভোটাররা। সেক্ষেত্রে ব্যক্তি যোগ্যতার চেয়ে রাজনৈতিক ব্যাকরাউন্ড ভোট পেতে বেশি কার্যকর ভূমিকা রাখে। তবুও বিপদ-আপদে যাকে কাছে পান তাকেই যোগ্য প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত করবেন বলে প্রত্যাশা জনপ্রতিনিধি ভোটারদের। অন্যদিকে, সদস্য প্রার্থীরা আগামীতে বিপদাপদে পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়ে জনগন ও জনপ্রতিনিধিদের সমার্থন চাইছেন। আর প্রার্থীরা সকলেই ক্ষমতাসীন দলের সাথে সম্পৃক্ত হওয়ায় সকলেই ভোট প্রত্যাশা করে জয়ের ব্যাপারে প্রত্যকেই আশাবাদী। তাই দিনরাত ভোটারদের ভোট পেতে তেরখাদা উপজেলার একপ্রান্ত থেকে অপরপ্রান্তে চষে বেড়াচ্ছেন। সদস্য প্রার্থী এফ এম মফিজুর রহমান বলেন, এই নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করায় ভোটারদের মাঝে ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। আশা করি আমি বিপুল ভোটে জয়ী হবো এবং তেরখাদার শতভাগ উন্নয়নের চেষ্টা করব। সদস্য প্রার্থী কে এম নূর ইসলাম বলেন, জয়ের ব্যাপারে আশাবাদি, নির্বাচনে জয়লাভ করলে আমি তেরখাদার উন্নয়নে সম্ভব্য সকল প্রচেষ্টা চালাব। তেরখাদাবাসীর অধিকার আদায় ও সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য আমি নির্বাচনে লড়ছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

নিচে আপনার মতামত লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

ThemesBazar-Jowfhowo
# নতুন সকাল ডটকম, খুলনা রূপসা থেকে প্রকাশিত একটি অনলাইন পত্রিকা। # এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া কপি রাইট বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।